৬শ’ কৃষককে প্রকাশ্যে ঋণ দিলেন গভর্নর

Posted: নভেম্বর 12, 2009 in Agriculture, Economics

কৃষিঋণ বিতরণ নিয়ে অনিয়ম আর দুর্নীতির অবসান ঘটাতে প্রকাশ্যে ঋণ বিতরণের ঘোষণা দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় ব্যাংক গভর্নর আতিউর রহমান।

বৃহস্পতিবার নিজে শেরপুরের তিন উপজেলার ৬০৩ জন কৃষকের মধ্যে প্রকাশ্যে প্রায় ২ কোটি টাকা কৃষিঋণ বিতরণ করলেন তিনি।

এসময় আবারো দেশের অর্থনীতিতে কৃষকদের অবদানের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন গভর্নর। 

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শেরপুর জেলা সদরের পাকুরিয়া, শ্রীবরদী উপজেলার লংগরপাড়া ইউনিয়ন এবং ঝিনাইগাতি উপজেলার তেঁতুলতলা ইউনিয়নের কৃষকদের মধ্যে কৃষি ব্যাংকের ঋণ বিতরণ করেন আতিউর রহমান।

তিনি এসময় বলেন, “গত জুলাই মাসের প্রথম দিকে চলতি অর্থবছরের কৃষি ঋণ বিতরণ লক্ষ্যমাত্রা এবং কৃষিঋণ নীতিমালা ঘোষণার সময় আমি বলেছিলাম, এবার আমরা ঢাক-ঢোল পিটিয়ে প্রকাশে ঋণ বিতরণ করবো। এ প্রতিশ্র”তিকে সামনে রেখেই আমরা সারাদেশেই সবার সামনে কৃষকদের কাছে কৃষিঋণ পৌঁছে দিচ্ছি।”

মুক্তিযোদ্ধাদের প্রায় ৮০ ভাগই কৃষকের সন্তান উল্লেখ করে আতিউর বলেন, “রাষ্ট্রের দায়িত্ব তাদের সেই অবদানের স্বীকৃতি দেওয়া। আর সেই দায়িত্ববোধ থেকেই আমরা কোনো ধরনের জামানত ছাড়াই অপেক্ষাকৃত কম সুদে কৃষকদের হাতে কৃষিঋণ পৌঁছে দিচ্ছি।”

কৃষি ঋণের ব্যাপারে বহুল প্রচলিত অনিয়মের উল্লেখ করে গভর্নর বলেন, এবার আসল কৃষকদের ঋণ পাওয়া নিশ্চিত করতে নতুন পদ্ধতিতে ঋণ বিতরণ শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, ব্যাংক কর্মকর্তারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রকৃত কৃষকদের এনে প্রকাশ্যে তাদের হাতে ঋণ তুলে দিচ্ছেন।

প্রকৃত কৃষক ছাড়া অন্যদের ঋণ পাওয়া ছাড়াও ঋণের টাকা পেতে উল্লেখযোগ্য অঙ্কের ঘুষ দিতে কৃষকদের বাধ্য করার অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

আতিউর রহমান বলেন, কৃষকদের কারণেই বৈদেশিক মুদ্রার ভাণ্ডার দশ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। তাদের অবদানের কারণেই চলতি অর্থবছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধি (অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি) ৬ শতাংশের বেশি হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

“আইএমএফ যাই বলুক না কেন আমরা ৬ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করবোই”, জোর দিয়ে বলেন গভর্নর।

কৃষকরা তাদের নেওয়া ঋণ দিয়ে আগামী বোরো মৌসুমেও বাম্পার ফলন ফলিয়ে দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের দিকে নিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানগুলোতে অন্যদের মধ্যে কৃষি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ইব্রাহিম খালেদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোক্তার হোসেন, স্থানীয় সাংসদ, উপজেলা চেয়ারম্যান ও কৃষি ব্যাংকের আঞ্চলিক কর্মকর্তারা বক্তব্য দেন।

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশ ব্যাংক সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে ।

সংগ্রহ – ঢাকা, নভেম্বর ১২ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s